বিশ্বনাথে প্রবাসীর ঘর ডাকাতি।


বাসায় মানুষকে মারধর তারপর টাকা পয়সা লুটপাট করে ডাকাত দল পালাতক।
এবিষয়ে বিশ্বনাথ এর পুলিশ সুপার সাহেব ইনচার্জ করছেন।
বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদের পার্শ্ববর্তি খাজাঞ্চি রোডের পূর্ব-জানাইয়ায় সৌদী প্রবাসী আব্দুল তাহিদের ভাড়া বাসায় ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোররাত ২.৩০মিনিটের দিকে গেইটের তালা ও দরজা ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে ১২,১৫জনের একটি  ডাকাত দল। ডাকাতদের  বাধা দিতে চাইলে পরিবারের মানুষ  হামলার শিকার হোন।  প্রবাসী আব্দুল তাহিদের মামা শ্বশুর ইরন মিয়া (৭০), স্ত্রী হেনা বেগম (২৬), মেয়ে তাহিয়্যা আক্তার (১০) ও ফাতেমা আক্তার (৭) আহত হন। আহত হওয়ার পর স্থানীয়ভাবে তারা চিকিৎসা নিয়েছেন।
বিষয়টি নিশ্চিত করে প্রবাসীর স্ত্রী হেনা বেগম জানান, তার স্বামী দীর্ঘদিন ধরে সৌদী আরবে বসবাস করছেন। আর দীর্ঘ ৬ বছর ধরে তারা লন্ডন প্রবাসী আলকাছ মিয়ার বাসায় ভাড়ায় বসবাস করছেন। প্রতিদিনের মতো তিনি বৃহস্পতিবার রাতে খাবারের পরে  তার মামা ও দুই মেয়েকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। রাত দুই আড়াইটার দিকে  ১২/১৫  জনের ডাকাত দল প্রবেশ করে তাদেরকে মারধর করে। এ সময় ডাকাতদল তাদের হাত-পা বেঁধে ঘরে থাকা নগদ ২৫ হাজার টাকা, ১০ ভরি স্বর্ণালংকার, একটি টেবলওয়েট ও তিনটি স্যামসং মোবাইল ফোনসেটসহ প্রায় সাড়ে ৫ লাখ টাকার মালপত্র লুট করে নিয়ে যায় ডাকাত দল।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বিশ্বনাথ থানার ওসি শামীম মুসা বলেন, ডাকাতির বিষয়ে কিছুই তাদের জানা নেই। কিন্তু তারপরও মামলা দেওয়া হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি। 
তিনি আরো বলেন যে এবিষয়ে ইনশাআল্লাহ আমরা কঠোর পদক্ষেপ নেব।
এবং সবাইকে সচেতন ভাবে থাকার আহবান জানান তিনি।

0 Comments